বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ১৭, ২০২২

বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ সবার আগে

রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ হত্যাকান্ডে অংশ নেওয়া চার সন্ত্রাসী গ্রেফতার -১৪ এপিবিএনের প্রেস ব্রিফিং

বিশেষ প্রতিবেদক:

রোহিঙ্গাদের অন্যতম নেতা মুহিবুল্লাহ হত্যাকাণ্ডে সরাসরি চারজন কে গ্রেফতার করেছে আর্মড পুলিশ ব্যাটেলিয়ন-এপিবিএন ১৪।

শনিবার দুপুর একটায় উখিয়ার ১৪ এপিবিএন কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ১৪ এপিবিএন এর অধিনায়ক ও পুলিশ সুপার নাঈমুল হক।

আটককৃত আসামীরা হলো, ক্যাম্প ১/ইস্টের বাসিন্দা মোহাম্মদ আজিজুল হক, ক্যাম্প ১/ ইস্টের বাসিন্দা আব্দুল মাবুদের পুত্র মোঃ রশিদ প্রকাশ মুরশিদ আমিন, ক্যাম্প ১/ওয়েস্টের বাসিন্দা ফজল হকের পুত্র মোঃ আনাছ, ও একই ক্যাম্পের বাসিন্দা নুর সালামের পুত্র নূর মোহাম্মদ।

এসপি নাইমুল হক জানান, “সরাসরি কিলিং মিশনে অংশ নেওয়া আজিজুল হককে শনিবার ভোরে লাম্বাশিয়া পুলিশ ক্যাম্পের অধীন লোহার ব্রীজ এলাকা হতে এক টি ওয়ান শুটারগান এবং এক রাউন্ড তাজা কার্তুজসহ গ্রেফতার করা হয়। পরে আজিজের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে অপর তিন আসামী কে গ্রেফতার করা হয়।”

মাত্র দুইমিনিট সময় লাগে সন্ত্রাসীদের হত্যাকান্ড সংঘটিত করতে জানিয়ে নাঈমুল হক, ধৃত দের ভাষ্যমতে জানান কিলিং মিশিনে অংশ নিয়েছিলো পাচ অস্ত্রধারী।

জিজ্ঞাসাবাদে আজিজ এ সংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছে উল্লেখ্য করে নাঈমুল হক বলেন, “মহিবুল্লাহ’কে হত্যার দুই দিন আগে লাম্বাশিয়া মরকজ পাহাড়ে দুর্বৃত্তরা বৈঠক করে যেখানে ধৃত আজিজুল হকসহ আরও চার জন উপস্থিত ছিল।”

জিজ্ঞাসাবাদে আজিজ জানায়, “আলোচনায় প্রত্যাবাসন ইস্যুতে মুহিবুল্লাহ গুরুত্বপূর্ণ হয়ে ওঠায় হত্যার নির্দেশ দিয়েছে তাদের শীর্ষ পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ মর্মে মুহিবুল্লাহকে হত্যার পরিকল্পনা করা হয়”।

ঘটনার দিন পরিকল্পনা অনুযায়ী “এশার নামাজ এর পর মাস্টার মহিবুল্লাহ তার শেডে ফিরে গেলে ধৃত মুরশিদ আমিন তাকে নিজ শেডে ডেকে নিয়ে প্রত্যাবাসন বিষয়ে কথা বলে এবং কিছু লোক তার সাথে অফিসে কথা বলবে মর্মে অফিসে ডেকে নিয়ে যায়” বলে জানায় আজিজ।

আজিজ আরো জানায়, “মুরশিদ আমিন মহিবুল্লাহ’র নিজ অফিসে অবস্থান করছে এমন তথ্য ধৃত অপর দুই আসামী মোঃ আনাছ ও নুর মোহাম্মদ কে জানিয়ে অই এলাকা দ্রুত ত্যাগ করে। পরে আনাছ ও নুর মোহাম্মদ হত্যাকান্ডে অংশ নিতে অপেক্ষায় থাকা সাত সদস্যের মুখোশধারী দুর্বৃত্ত দল কে অফিসে আসতে বলে।”

আজিজের ভাষ্যমতে “দুর্বৃত্ত দলটির তিনজন অফিসে প্রবেশ করে,ধৃত আজিজ, আনাস ও নুর মোহাম্মদ এবং অপর এক অস্ত্রধারী সহ চার জন অফিসের দরজায় অবস্থান নেয়। অফিসে প্রবেশ করা এক অস্ত্রধারী “মুহিবুল্লাহ ওঠ” বললে মুহিবুল্লাহ চেয়ার থেকে দাড়ানোর পর সাথে । মহিবুল্লাহ চেয়ার থেকে উঠে দাড়ালে প্রথম দুর্বৃত্ত একটি, দ্বিতীয় জন দুইলটি এবং সর্বশেষ দুর্বৃত্ত একটি সহ মোট চারটি গুলি করলে মুহিবুল্লাহ মাটিতে লুটিয়ে পড়ে।”

হত্যাকান্ডের পর অফিসের পিছনের দরজা দিয়ে আজিজ, আনাস, নুর মোহাম্মদ সহ বাকিরা পালিয়ে যায় বলে জানায় আজিজ।

বিফ্রিংয়ে নাইমুল হক জানান, হত্যাকান্ডের পরপরই এপিবিএন পুলিশ রোহিঙ্গা ক্যাম্প এলাকায় সাড়াশী অভিযান পরিচালনা করে ফলে ঘটনার সাথে সম্পৃক্ত বর্ণিত আসামীদেরকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।”

রোহিঙ্গা ক্যাম্প এলাকায় আইন পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখা এবং মাস্টার মহিবুল্লাহ হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত অন্যান্য দের আইনের আওতায় আনতে অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানান এপিবিএন এর এই কর্মকর্তা।

সর্বশেষ খবর

সমুূদ্র সৈকতে ভেসে এসেছে ঝাঁকে ঝাঁকে মাছ, খালি হাতে ফেরেনি কেউ

রাহুল মহাজন: এবার কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে ভেসে আসছে ঝাঁকে ঝাঁকে মাছ। ছোট আকারের বিভিন্ন প্রজাতির এসব মাছ সবই মৃত।সৈকতের লাবনী পয়েন্ট থেকে শৈবাল পয়েন্ট পর্যন্ত...

প্রথম বারের মতো ঈদগাঁও উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন কাউন্সিল শুক্রবার

শাহিদ মোস্তফা শাহিদ, ঈদগাঁও: প্রথম বারের মতো কক্সবাজারের নব গঠিত ঈদগাঁও উপজেলার আওয়ামী লীগের সম্মেলন ও কাউন্সিল আগামী কাল শুক্রবার অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। সম্মেলন কাউন্সিলকে...

“We should always be ready to defend our motherland from external enemy – Army Chief”

TTN DESK:" We should always be ready to defend our motherland from external enemy . The mindset of sacrifice always should be kept.'-   Chief of Army...

দেশ মাতৃকাকে বহিঃশত্রুর আক্রমণ থেকে রক্ষায় সদা প্রস্তুত থাকতে হবে- কক্সবাজারে সেনা প্রধান

নিজস্ব প্রতিবেদক : 'দেশ মাতৃকাকে যেকোন বহিঃশত্রুর আক্রমণ থেকে রক্ষায় সদা প্রস্তুত থাকতে হবে। যে কোন প্রয়োজনে ত্যাগের মানসিকতা রাখতে হবে।' কক্সবাজারের রামু ১০ পদাতিক...