শনিবার, নভেম্বর ২৬, ২০২২

বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ সবার আগে

মেজর সিনহা হত্যা মামলার ৪র্থ দফায় ২য় দিনের সাক্ষ্য গ্রহণ শুরু

টিটিএন রিপোর্ট:

আলোচিত মেজর অবসরপ্রাপ্ত সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান হত্যা মামলায় চতুর্থ দফার ২য় দিনের সাক্ষ্য গ্রহণ শুরু হয়ে।
বুধবার ৪ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ ও জেরা করার কথা রয়েছে। তবে দিনের শুরুতে গতকালের সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে জেরা বাকি থাকা ঠিকাদার হামজালালের জেরা শুরুর মধ্যদিয়ে আদালতের কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

রাষ্ট্রে পক্ষের আইনজীবী অ্যাড. ফরিদুল আলম জানিয়েছেন, হামজালালের জেরা শেষে আরো কয়েকজনের সাক্ষ্য গ্রহণ ও জেরা সম্পন্ন করার চেষ্টা করবেন তারা।

এর আগে প্রতিদিনের মতো সকাল সাড়ে ৯ টায় টেকনাফ থানার প্রাক্তন ওসি প্রদীপ কুমার দাশ, লিয়াকত আলী সহ ১৫ আসামীকে আদালতে হাজির করা হয়। এসময় আদালত প্রাঙ্গনে কড়া নিরাপত্তা জোরদার করা হয়।

জানা গেছে, চতুর্থ দফা সাক্ষ্য গ্রহণের শেষদিনে সাংবাদিক ফরিদুল মোস্তফা খানসহ আরো তিনজন স্বাক্ষী সাক্ষ্য প্রদানের জন্য আদালতে হাজিরা দিয়েছেন।

উল্লেখ্য, ২০২০ সালের ৩১ জুলাই রাতে কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ সড়কের শামলাপুর চেকপোস্টে পুলিশের গুলিতে নিহত হন মেজর (অব.) সিনহা মো. রাশেদ খান। তার সঙ্গে থাকা সাহেদুল ইসলাম সিফাতকে পুলিশ আটক করে। এরপর সিনহা যেখানে ছিলেন সেই নীলিমা রিসোর্টে ঢুকে তার ভিডিও দলের দুই সদস্য শিপ্রা দেবনাথ ও তাহসিন রিফাত নুরকে আটক করা হয়। পরে তাহসিনকে ছেড়ে দিলেও শিপ্রা ও সিফাতকে গ্রেফতার দেখিয়ে কারাগারে পাঠায় পুলিশ। এই দুজন পরে জামিনে মুক্তি পান।

সিনহা হত্যার ঘটনায় মোট চারটি মামলা হয়েছে। ঘটনার পরপরই পুলিশ বাদী হয়ে তিনটি মামলা করে। এর মধ্যে দুটি মামলা হয় টেকনাফ থানায়, একটি রামু থানায়। ঘটনার পাঁচ দিন পর অর্থাৎ ৫ আগস্ট কক্সবাজার আদালতে টেকনাফ থানার বরখাস্ত হওয়া ওসি প্রদীপ কুমার দাশ, বাহারছড়া তদন্ত কেন্দ্রের পরিদর্শক লিয়াকত আলীসহ ৯ পুলিশের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেন সিনহার বড় বোন শারমিন শাহরিয়া ফেরদৌস। চারটি মামলা তদন্তের দায়িত্ব পায় র‍্যাব।

২০২০ সালের ১৩ ডিসেম্বর ওসি প্রদীপ কুমার দাশসহ ১৫ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র দেন তদন্তকারী কর্মকর্তা ও র‍্যাব-১৫ কক্সবাজারের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মো. খাইরুল ইসলাম।

আসামিদের মধ্যে পুলিশের ৯ জন সদস্য রয়েছেন। তারা হলেন, বরখাস্ত হওয়া ওসি প্রদীপ কুমার দাশ, পরিদর্শক লিয়াকত আলী, কনস্টেবল রুবেল শর্মা, এসআই নন্দদুলাল রক্ষিত, কনস্টেবল সাফানুল করিম, কামাল হোসেন, আব্দুল্লাহ আল মামুন, এএসআই লিটন মিয়া ও কনস্টেবল সাগর দেব নাথ।

অপর আসামিরা হলেন- আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের (এপিবিএন) সদস্য এসআই মো. শাহজাহান, কনস্টেবল মো. রাজিব ও মো. আব্দুল্লাহ এবং টেকনাফের বাহারছড়ার মারিষবুনিয়া গ্রামের বাসিন্দা ও পুলিশের করা মামলার সাক্ষী নুরুল আমিন, মো. নিজাম উদ্দিন ও আয়াজ উদ্দিন।

গ্রেফতার হওয়া আসামিদের মধ্যে ১২ জন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। তবে ওসি প্রদীপ ও কনস্টেবল রুবেল শর্মা আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেননি। এর আগে আসামিদের তিন দফায় ১২ থেকে ১৫ দিন রিমান্ডে নেওয়া হয়েছিল।

সর্বশেষ খবর

ফ্রি IELTS কোর্স সহ যুক্তরাজ্যে স্কলারশিপ পরামর্শ দিতে কক্সবাজারে হচ্ছে UK EDUCATION MEET 2022

বিশেষ প্রতিবেদকঃ যুক্তরাজ্যের স্বনামধন্য বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতক শিক্ষা লাভের সুযোগ নিয়ে UK Education Meet 2022 শুরু হতে যাচ্ছে কক্সবাজারে। রোববার বেলা ১১টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত দিনব্যাপী...

জেলা নির্মান শ্রমিকদের ফুটবল টূর্নামেন্ট উদ্বোধন 

টিটিএন ডেস্ক : প্রতি বছরের ন্যায় কক্সবাজার জেলা নির্মাণ শ্রমিক উন্নয়ন সমিতি এবারও আয়োজন করেছে আন্তঃ গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্টের। শুক্রবার বেলা ৩ টায় শহরের দক্ষিন রুমালিয়ার...

কক্সবাজারে নবান্ন উৎসব ২৬ নভেম্বর

টিটিএন ডেস্ক: ❝ ঋতুর খাঞ্চা ভরিয়া এল কি ধরণির সওগাত? নবীন ধানের আঘ্রাণে আজি অঘ্রাণ হল মাত ❞ -স্লোগানে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট কক্সবাজার ও জেলা শিল্পকলা একাডেমির...

অঘটনের পর অঘটন ব্রাজিলে- নেইমারের পর এবার কে?

স্পোর্টস ডেস্ক: গোড়ালির চোটে কাতার বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্ব থেকে ছিটকে গেলেন তারকা ব্রাজিল ফরোয়ার্ড নেইমার ও দানিলো লুইজ দা সিলভা। ব্রাজিল জাতীয় দলের হয়ে রক্ষণভাগের খেলোয়াড়...