মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ২০, ২০২২

বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ সবার আগে

বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতকে ডেকে নিয়ে যা বলল মিয়ানমার

টিটিএন ডেস্ক :

ইয়াঙ্গুনে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতকে ডেকে নিয়ে সীমান্তে মর্টার শেল হামলার দায় আরাকান আর্মি ও আরাকান রোহিঙ্গা স্যালভেশন আর্মির (আরসা) ওপর চাপিয়েছে মিয়ানমার সরকার।

একইসঙ্গে বাংলাদেশের ভেতরে আরাকান আর্মি ও আরসার ঘাঁটি রয়েছে বলে অভিযোগ করে সেগুলোর তদন্ত করে দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়ার কথা বলেছে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

সোমবার (১৯ সে‌প্টেম্বর) বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মনজুরুল করিম খান চৌধুরীকে ডেকে নিয়ে নিজেদের অবস্থান ব্যাখ্যা করেন মিয়ানমারের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মহাপরিচালক উ জাউ ফিউ উইন।

বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতকে ডেকে নেওয়ার বিষয়‌টি মিয়ানমারের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ফেসবুক পেজে বিবৃতিতে আকারে প্রকাশ করার হয়।

বিবৃ‌তিতে বলা হয়, ঢাকায় মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূত ও বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মহাপরিচালকের বৈঠকগুলোতে বাংলাদেশের তুলে ধরা বক্তব্যের প্রেক্ষাপটে মিয়ানমার-বাংলাদেশ সীমান্তের কাছে গোলাগুলির বিষয়ে চলমান পরিস্থিতি বৈঠকে স্পষ্ট করেছেন মহাপরিচালক ফিউ উইন।

মহাপরিচালক বলেছেন, আরাকান আর্মি ও সন্ত্রাসী গোষ্ঠী আরসা ১৬ সেপ্টেম্বর বিপি-৩১ নম্বরের বর্ডার গার্ড পুলিশের তাউংপিও চৌকিতে মর্টার হামলায় চালায়, যার মধ্যে তিনটি মর্টার বাংলাদেশ ভূখণ্ডের ভেতরে পড়ে।তিনি আরও ব্যাখ্যা করেছেন, আরাকান আর্মি ও সন্ত্রাসী গোষ্ঠী আরসা পুনরায় একই অস্ত্র ব্যবহার করে এবং ১৬ ও ১৭ সেপ্টেম্বর তারিখে বিপি-৩৪ নম্বরে বর্ডার গার্ড পুলিশের তাউংপিউ চৌকি আক্রমণ করে, যেখানে ৯টি মর্টার শেল এসে পড়ে বাংলাদেশের মাটিতে।

মিয়ানমার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, বাস্তবিক ঘটনা তুলে ধরে মহাপরিচালক উল্লেখ করেছেন, মিয়ানমার ও বাংলাদেশের মধ্যে বিদ্যমান আন্তরিক দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের ওপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলতে অব্যাহতভাবে এ ধরনের হামলা চালিয়ে আসছে আরাকান আর্মি ও সন্ত্রাসী গোষ্ঠী আরসা।

মহাপরিচালক বলেছেন, সীমান্ত নিকটবর্তী এলাকায় সর্বোচ্চ সতর্কতার মাধ্যমে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার পাশাপাশি মিয়ানমার সবসময় দ্বিপাক্ষিক চুক্তি ও আন্তর্জাতিক রীতি-নীতি মেনে চলে এবং বাংলাদেশসহ সব দেশের অখণ্ডতা ও সার্বভৌমত্বকে শ্রদ্ধা জানায়।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, সীমান্তে শান্ত পরিস্থিতি বজায় রাখতে বাংলাদেশের সঙ্গে মিয়ানমারের একস‌ঙ্গে কাজ করবে বলে জানিয়েছেন মহাপরিচালক। এক্ষেত্রে বাংলাদেশের দিক থেকে সম্পূর্ণ ও একই ধরনের সহযোগিতার ওপর জোর দিয়েছেন তিনি।

মিয়ানমারের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়, বাংলাদেশের অভ্যন্তরে আরাকান আর্মি ও আরসা সন্ত্রাসীদের পরিখা ও ঘাঁটি থাকার তথ্য ৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ তারিখে কূটনৈতিক মাধ্যমে বাংলাদেশকে জানানোর কথা স্মরণ করেছেন মহাপরিচালক। এক্ষেত্রে সরেজমিন তদন্ত এবং সেসব স্থাপনা ও ঘাঁটি ধ্বংসে প্রয়োজনীয় ও দ্রুত পদক্ষেপ নিতে মিয়ানমারের আহ্বান তিনি পুনর্ব্যক্ত করেছেন।

বিভিন্ন ঘটনাবলির বাস্তব তথ্য দিয়ে একটি আন-অফিসিয়াল পেপার রাষ্ট্রদূতের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে বলেও জানায় মিয়ানমারের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

সর্বশেষ খবর

পেকুয়ায় ছাত্রীকে ইভটিজিং, শিক্ষকের কারাদণ্ড

টিটিএন ডেস্ক : কক্সবাজারের পেকুয়ায় ছাত্রীকে ইভটিজিং করার অপরাধে মাদরাসা শিক্ষককে এক বছর কারাদন্ড দেন আদালত। সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় পেকুয়া উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পূর্বিতা চাকমা...

ফরাসী সুর মুগ্ধতার পরশ বুলালো ইউএনএইচসিআর প্রাঙ্গনে

নিজস্ব প্রতিবেদক: সন্ধ্যার খোলা আকাশ, গাছের সবুজ পাতার ফাঁকে নিয়নবাতির চাঁদ আলো। তখনও সমবেত অতিথিরা কফিতে আকণ্ঠ নিমজ্জিত, সাদা কাপড়ে মাড়ানো মঞ্চ থেকে রেজিনা পোরতিলা...

অস্থির সীমান্ত দিয়ে ঢুকছে ইয়াবা, বিজিবির হাতে আটক ৩ রোহিঙ্গা

শাহেদ হোছাইন মুবিন : কক্সবাজারের উখিয়ায় বিজিবির অভিযানে১লাখ পিস ইয়াবাসহ তিন রোহিঙ্গা কে আটক করেছে।উদ্ধারকৃত মাদকের মূল্য তিন কোটি টাকা বলে বিজিবি জানিয়েছেন।আটককৃতরা হলেন উখিয়ার...

সংসদ সদস্য জাফর আলমকে সপরিবারে দুদকে জিজ্ঞাসাবাদ

আয়াছুল আলম সিফাত: অবৈধ উপায়ে সম্পদ অর্জনের অভিযোগে চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সংসদ সদস্য জাফর আলমকে স্বপরিবারে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন। মঙ্গলবার দুপুর ২ টার...