শনিবার, নভেম্বর ২৬, ২০২২

বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ সবার আগে

জামাই শফিউল্লাহ প্রতিমাসে মায়ানমার থেকে উখিয়ায় আনেন ৪০ লাখ ইয়াবা!

বিশেষ প্রতিনিধি :

কক্সবাজার উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে ৮ টি মাদক মামলার পলাতক আসামী, আলোচিত ইয়াবা ব্যবসায়ী মোহাম্মদ শফিউল্লাহ প্রকাশ জামাই শফিউল্লাহ নামে এক রোহিঙ্গাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আটক শফিউল্লাহ, লম্বাশিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ই-ব্লকের ২ নম্বর শেডের বাসিন্দা আবদুস সালামের পুত্র।

রোববার (৩ জুলাই) বিকেলে, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়েরের পর ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করে শফিউল্লাহ’কে আদালতে প্রেরন করা হয়েছে বলে উখিয়া থানা পুলিশ সুত্রে জানা গেছে। গ্রেফতারের পর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে শফিউল্লাহ পাচারের উদ্দেশ্যে প্রতি মাসে ৩০-৪০ লাখ ইয়াবার চালান মায়ানমার থেকে উখিয়ার ক্যাম্পে মজুদ করার কথা স্বীকার করেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

তালিকাভুক্ত এই ইয়াবা ব্যবসায়ী গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন উখিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ( ওসি) শেখ মোহাম্মদ আলী। তিনি জানান, এপিবিএনের সহযোগিতায় শনিবার (২ জুলাই) রাতে লম্বাশিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে শফিউল্লাহ কে আটক করা হয়। পরে, তাঁর দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে পুলিশের একটি দল উখিয়ার পাতাবাড়ীতে অভিযান চালিয়ে আনুমানিক ৬০ লক্ষ টাকা মূল্যের ২০ হাজার ইয়াবা উদ্ধার করে। শেখ মোহাম্মদ আলী বলেন, ” জিজ্ঞাসাবাদে প্রতি মাসে ৯০ থেকে ১২০ কোটি টাকার দামের ৩০ থেকে ৪০ লাখ ইয়াবা মিয়ানমার থেকে নানা কৌশলে উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে নিয়ে আসার তথ্য দিয়েছে শফিউল্লাহ। সে আরো জানায়, দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বিক্রির উদ্দেশ্যে আনা এসব ইয়াবা একটি চক্রের মাধ্যমে সরবরাহ করা হয়।”

শফিউল্লাহ কয়েকজন বড়মাপের রোহিঙ্গা ইয়াবা ব্যবসায়ীদের তথ্য দিয়েছে উল্লেখ করে ওসি জানান, তাদের আইনের আওতায় আনতে অনুসন্ধান চলছে। রোববার (৩ জুলাই) বিকেলে, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়েরের পর ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করে শফিউল্লাহ কে আদালতে প্রেরন করা হয়েছে বলে জানান উখিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা। এদিকে, উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পে বসবাসরত নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক রোহিঙ্গা অধিকারকর্মী বলেন, ” শফিউল্লাহ প্রশাসনের কাছে চিহ্নিত ইয়াবা ব্যবসায়ী, সে আরাকানের মংডু থেকে বাংলাদেশে ক্যাম্পে চলে আসে। ওপারের ইয়াবা গডফাদারদের সাথে তার সুসম্পর্ক আছে।” তবে শুধু শফিউল্লাহ নয় অসংখ্য বড় ইয়াবা পাচারকারি ক্যাম্পে আছে উল্লেখ করে এই অধিকারকর্মী জানান, ” শফিউল্লাহর মতো রোহিঙ্গা যারা ইয়াবা কারবারে জড়িত তাদের কে আইনের আওতায় নিয়ে আসলে ক্যাম্প দিয়ে ইয়াবা পাচার কমে আসবে।

” আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর একটি সমন্বিত পরিসংখ্যান বলছে, উখিয়া- টেকনাফ সীমান্ত এলাকায় গত বছর ২০২১ সালে বিভিন্ন বাহিনীর হাতে উদ্ধার হয়েছিল ২ কোটি ৫৯ লাখ ৬৭ হাজার ৯৫০ ইয়াবা ও ২৩ কেজি ৮০২ গ্রাম আইস। গত জুন মাসে বিজিবি, র্যাব, এপিবিএন, পুলিশ, কোস্টগার্ড ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর অন্তত ৬ কেজি আইস ও ২১ লাখের বেশি ইয়াবা উদ্ধার করে। এছাড়াও এবছরের প্রথম চার মাসে মিয়ানমার থেকে পাচারের সময় আরও প্রায় ১ কোটি ইয়াবা এবং ৫০ কেজির বেশি আইস উদ্ধার করা হয়েছে।

সর্বশেষ খবর

ফ্রি IELTS কোর্স সহ যুক্তরাজ্যে স্কলারশিপ পরামর্শ দিতে কক্সবাজারে হচ্ছে UK EDUCATION MEET 2022

বিশেষ প্রতিবেদকঃ যুক্তরাজ্যের স্বনামধন্য বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতক শিক্ষা লাভের সুযোগ নিয়ে UK Education Meet 2022 শুরু হতে যাচ্ছে কক্সবাজারে। রোববার বেলা ১১টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত দিনব্যাপী...

জেলা নির্মান শ্রমিকদের ফুটবল টূর্নামেন্ট উদ্বোধন 

টিটিএন ডেস্ক : প্রতি বছরের ন্যায় কক্সবাজার জেলা নির্মাণ শ্রমিক উন্নয়ন সমিতি এবারও আয়োজন করেছে আন্তঃ গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্টের। শুক্রবার বেলা ৩ টায় শহরের দক্ষিন রুমালিয়ার...

কক্সবাজারে নবান্ন উৎসব ২৬ নভেম্বর

টিটিএন ডেস্ক: ❝ ঋতুর খাঞ্চা ভরিয়া এল কি ধরণির সওগাত? নবীন ধানের আঘ্রাণে আজি অঘ্রাণ হল মাত ❞ -স্লোগানে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট কক্সবাজার ও জেলা শিল্পকলা একাডেমির...

অঘটনের পর অঘটন ব্রাজিলে- নেইমারের পর এবার কে?

স্পোর্টস ডেস্ক: গোড়ালির চোটে কাতার বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্ব থেকে ছিটকে গেলেন তারকা ব্রাজিল ফরোয়ার্ড নেইমার ও দানিলো লুইজ দা সিলভা। ব্রাজিল জাতীয় দলের হয়ে রক্ষণভাগের খেলোয়াড়...