মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২২

বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ সবার আগে

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ৪৬ তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

টিটিএন ডেস্ক:

আজ নজরুলের মৃত্যুবার্ষিকী। এই দিনে বিদ্রোহী কবির প্রতি রইল আমাদের শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা।

কবি নজরুল ইসলাম ১৮৯৯ সালের ২৪ মে (১৩০৬ বঙ্গাব্দের ১১ জ্যৈষ্ঠ) পশ্চিমবঙ্গের বর্ধমান জেলার চুরুলিয়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। বাবার নাম কাজী ফকির আহমেদ ও মা জাহেদা খাতুন।অল্প বয়সে বাবা-মাকে হারান নজরুল। এরপর শুরু হয় তার কষ্টের জীবন। ছোটবেলা দুঃখে-কষ্টে কেটেছে বলে সে সময়ে তার ডাকনাম ছিল দুখু মিয়া।

গ্রামের মক্তবে প্রাথমিক শিক্ষা শেষ করে নজরুল যোগ দিয়েছিলেন লেটো গানের দলে। কিছুদিন ছিলেন মক্তবের শিক্ষক। আসানসোলে রুটির দোকানেও কাজ করেছেন তিনি। এরপর সেখান থেকে এক বাঙালি পুলিশ অফিসার তাকে ময়মনসিংহে এনে স্কুলে ভর্তি করেন। দশম শ্রেণিতে পড়ার সময় দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে যোগ দেন নজরুল। যুদ্ধ শেষে কলকাতায় ফিরে এসে সাহিত্যচর্চায় মনোনিবেশ করেন তিনি। ‘ধূমকেতু’, ‘নবযুগ’ ও ‘লাঙল’ পত্রিকার সম্পাদনাও করেছেন নজরুল।

প্রেম, দ্রোহ, সাম্যবাদ ও জাগরণের কবি কাজী নজরুল ইসলামের কবিতা ও গান শোষণ-বঞ্চনার বিরুদ্ধে সংগ্রাম করতে জাতিকে উদ্বুদ্ধ করেছে। মুক্তিযুদ্ধে তার গান ও কবিতা ছিল প্রেরণার উৎস। নজরুলের কবিতা, গান ও সাহিত্য কর্ম বাংলা সাহিত্যে নবজাগরণ সৃষ্টি করেছিল।

লেখকদের মধ্যে তিনি ছিলেন অসাম্প্রদায়িক চেতনার পথিকৃৎ। তার লেখনী জাতীয় জীবনে অসাম্প্রদায়িক চেতনা বিকাশে ব্যাপক ভূমিকা পালন করে।ইসলামী গজলের পাশাপাশি লিখে গেছেন শ্যামা সংগীত।

বাংলাদেশ রাষ্ট্রের জন্মের পর ১৯৭২ সালের ২৪ মে স্বাধীন তৎকালীন রাষ্ট্রপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের উদ্যোগে ভারত সরকারের অনুমতি নিয়ে কবি নজরুলকে সপরিবারে ঢাকায় আনা হয়। তাকে দেওয়া হয় জাতীয় কবির মর্যাদা।নজরুল বাংলা ভাষা সাহিত্য অনুরাগীদের কাছে বিদ্রোহী কবি হিসেবে পরিচিত হলেও তিনি কবিতা, সংগীত, উপন্যাস, গল্প, নাটক, প্রবন্ধ, চলচ্চিত্রে নিজের অবদান রেখেছেন। ছিলেন সাংবাদিক, গায়ক ও অভিনেতা। সংগীতে তার অনবদ্য অবদান এখনো তারার মতো উজ্জ্বল।

কাজী নজরুল ইসলামের একটি বিখ্যাত কবিতা ‘বিদ্রোহী। ’ এই কবিতাটি তাকে ব্যাপক খ্যাতি এনে দিয়েছিল। ‘আনন্দময়ীর আগমনে’ নামক একটি কবিতা লিখে ব্রিটিশ শাসকদের ব্যঙ্গ করেছিলেন তিনি। সেজন্য তাকে কারাভোগ করতে হয়। কারাগারে থাকা অবস্থায় কবি অনেক অসুস্থ হয়ে পড়েন এবং বাকশক্তি হারান।

আজ ১২ ভাদ্র জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ৪৬তম মৃত্যুবার্ষিকী। ১৯৭৬ সালের এই দিনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) কেন্দ্রীয় মসজিদের পাশে কবিকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় সমাহিত করা হয়।

সর্বশেষ খবর

ফুটবল ট্রফি ভাঙার ঘটনায় সেই ইউএনওকে বদলি

টিটিএন ডেস্ক : বান্দরবানের আলীকদমে ফুটবল খেলার ট্রফি ভাঙার ঘটনায় আলোচিত সেই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মেহেরুবা ইসলামকে ঢাকা বিভাগের বদলি করা হয়েছে।...

মারা গেছেন প্রভাবশালী ধর্মীয় নেতা ইউসুফ-আল-কারযাভী

টিটিএন ডেস্ক: মুসলিম বিশ্বের অন্যতম প্রভাবশালী ধর্মীয় নেতা শেখ ইউসুফ-আল-কারযাভী মারা গেছেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৯৬ বছর। মিশরীয় ধর্মীয় নেতা কারযাভী কাতারে বসবাস করতেন। সোমবার...

পর্যটন দিবসে বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় আয়োজনের শুরু কক্সবাজারে

আব্দুর রশিদ মানিক: কক্সবাজারের পর্যটনকে বিশ্ব দরবারে তুলে ধরতে আন্তর্জাতিক পর্যটন দিবস উপলক্ষে কক্সবাজারে অনুষ্ঠিত হচ্ছে বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় উৎসব। কক্সবাজারকে বলা হয় পর্যটন রাজধানী। তাই...

কক্সবাজার জেলা পরিষদ নির্বাচন : প্রতীক পেয়ে প্রচারে নামলেন প্রার্থীরা

শাহেদ হোছাইন মুবিন : কক্সবাজার জেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থীদের মাঝে প্রতীক বরাদ্দ সম্পন্ন হয়েছে। সোমবার সকালে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের শহীদ এটিএম জাফর আলম সম্মেলন কক্ষে...