শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২২

বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ সবার আগে

ছড়িয়ে পড়ছে চোখ ওঠা রোগ।জেনে নিন এর কারণ-লক্ষণ ও প্রতিকার

সায়ন্তন ভট্টাচার্য:

হঠাৎ করে শহরে বাড়ছে চোখ ওঠা রোগীর সংখ্যা। এ রোগে আক্রান্ত হয়েও অনেক শিক্ষার্থীকে স্কুলে যেতে দেখা গেছে। এ ছাড়া হাসপাতালেও বেড়েছে এ রোগীর সংখ্যা।

চিকিৎসকরা বলছেন, গরমে আর বর্ষায় চোখ ওঠার প্রকোপ বাড়ে।

আসুন জেনে নিই এই রোগের কারণ,লক্ষণ ও প্রতিকার বিষয়ে।

একে বলা হয় কনজাংটিভাইটিস বা চোখের আবরণ কনজাংটিভার প্রদাহ। সমস্যাটি চোখ ওঠা নামেই পরিচিত। রোগটি ছোঁয়াচে। ফলে দ্রুত অন্যদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ে। কনজাংটিভাইটিসের লক্ষণ হলো চোখের নিচের অংশ লাল হয়ে যাওয়া, চোখে ব্যথা, খচখচ করা বা অস্বস্তি। প্রথমে এক চোখ আক্রান্ত হয়, তারপর অন্য চোখে ছড়িয়ে পড়ে। এ রোগে চোখ থেকে পানি পড়তে থাকে। চোখের নিচের অংশ ফুলে ও লাল হয়ে যায়। চোখ জ্বলে ও চুলকাতে থাকে। আলোয় চোখে আরও অস্বস্তি হয়।
কনজাংটিভাইটিস রোগটি আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শ থেকে ছড়ায়। রোগীর ব্যবহার্য রুমাল, তোয়ালে, বালিশ অন্যরা ব্যবহার করলে এতে আক্রান্ত হয়। এ ছাড়া কনজাংটিভাইটিসের জন্য দায়ী ভাইরাস বাতাসের মাধ্যমেও ছড়ায়। আক্রান্ত ব্যক্তির আশপাশে যারা থাকে, তারাও এ রোগে আক্রান্ত হয়।

চোখ উঠলে আক্রান্ত চোখে নোংরা পানি, ধুলাবালি, দূষিত বাতাস যেন চোখে প্রবেশ না করে, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। এছাড়া সকালে ওঠার পর চোখে পানি দিয়ে পরিষ্কার করতে হবে।

আক্রান্ত চোখে নিয়ে বাইরে যাওয়ার সময় সানগ্লাস পরতে হবে। এটি রোদে চোখ জ্বলা কমাবে। এবং চোখে হাত দেয়ার প্রবণতা কমাবে।

চোখ ওঠা ছোঁয়াচে রোগ, তাই যাদের চোখ উঠেছে, তাদের সংস্পর্শ পরিহার করতে হবে। চোখ ওঠা আক্রান্ত ব্যক্তির রুমাল, কাপড়চোপড়, তোয়ালে ব্যবহার করা যাবে না। এমনকি হ্যান্ডশেকের মাধ্যমেও অন্যরা আক্রান্ত হতে পারেন। এ জন্য হাত তাড়াতাড়ি ধুয়ে ফেলতে হবে। নোংরা হাত চোখে লাগানো যাবে না।

কোনো কোনো ক্ষেত্রে ভাইরাসের আক্রমণের পর ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণ ঘটে। এ জন্য দিনে তিন থেকে চারবার চোখের অ্যান্টিবায়োটিক ড্রপ ক্লোরামফেনিকল ব্যবহার করতে হবে। ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণ না হলেও সেকেন্ডারি ইনফেকশন প্রতিরোধ করার জন্য এটি ব্যবহার করা যায়। চোখে চুলকানি থাকলে অ্যান্টিহিস্টামিন সেবন করতে হবে। এ ক্ষেত্রে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

দৃষ্টি ঝাপসা হলে, চোখ খুব বেশি লাল হলে, খুব বেশি চুলকালে বা অতিরিক্ত ফুলে গেলে দ্রুত ডাক্তারের পরামর্শ নিতে হবে।

সর্বশেষ খবর

মহেশখালীতে প্রবাসীর বাড়ি ডাকাতি: মধু ডাকাতসহ আটক-২

কাব্য সৌরভ, মহেশখালী : মহেশখালীর শাপলাপুরে প্রবাসীর বাড়ি ডাকাতির ঘটনায় আরো দুইজনকে আটক করেছে মহেশখালী থানা পুলিশ। পুলিশ জানায়, বুধবার (১৪ সেপ্টেম্বর) চট্টগ্রামের চাঁদগাঁও এলাকা থেকে...

কক্সবাজারে মাটি খুঁড়ে পাওয়া গেছে প্রাচীণ বুদ্ধ মূর্তি

শিপ্ত বড়ুয়া, রামু(কক্সবাজার): কক্সবাজারের রামুতে এক মুসলিম পরিবারের বসত ঘরের মাটি খুঁড়ে পাওয়া গেছে মহামূল্যবান প্রাচীন বুদ্ধমূর্তি। মঙ্গলবার সকালে রামু উপজেলার জোয়ারিয়ানালার চৌধুরী পাড়ায় আব্দুর...

লাইভ সেভিং ওয়ার্ল্ড কম্পিটিশনে প্রথমবারের মতো সার্ফার সিফাত উড়াবে বাংলাদেশের পতাকা

মোমতাহিনা মাহী: সাগর তীরে চলছে পুরো দমে প্রশিক্ষন, কখনও সাগর জলে উদ্ধার তৎপরতার প্রশিক্ষন আবার কখনও বালুচরে কসরত। এবার লাল সবুজের রঙ্গে উদ্ভাসিত হবে দুনিয়ার...

পেকুয়া শিক্ষক হত্যা মামলায় :স্বামী কে মৃত্যুদন্ড,স্ত্রী কে যাবজ্জীবন

মোজাম্মেল হক : ঘরের চালের উপর বৈদ্যুতিক তার পড়ায় দুর্ঘটনা এড়াতে তা সরাতে বলেন প্রতিবেশীকে। কিন্তু তাতে বাঁধে বাকবিতণ্ডা। বাকবিতন্ডার এক পর্যায়ে প্রতিবেশী ছালেহ জঙ্গি...