শনিবার, অক্টোবর ১, ২০২২

বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ সবার আগে

‘গ্রামে বাসা-বাড়ি করতেও অনুমতি নিতে হবে’

টিটিএন ডেস্ক:
গ্রামগঞ্জে বাসাবাড়ি, দোকানপাট, মসজিদ, মাদ্রাসা, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, হাসপাতাল, ক্লাব কিংবা অফিস-আদালতসহ যেকোনও অবকাঠামো নির্মাণ করতে একটি যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে অনুমতি নিতে হবে। এক্ষেত্রে ইউনিয়ন পরিষদকে দায়িত্ব দেওয়া যেতে পারে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম।

বুধবার (৫ মে) মিন্টো রোডের সরকারি বাসভবন থেকে সেভ দ্য চিলড্রেন ও বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব প্ল্যানার্স আয়োজিত ‘মেয়র সংলাপ: নিরাপদ, টেকসই ও অন্তর্ভুক্তিমূলক নগর’ বিষয়ক ভার্চুয়াল সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা জানান তিনি।

স্থানীয় সরকার মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ‘আমার গ্রাম আমার শহর’ দর্শনের ফলে শহরের সকল সুযোগ-সুবিধা প্রত্যন্ত গ্রাম অঞ্চলে পৌঁছে দিচ্ছে সরকার। তাই এখন থেকেই গ্রামকে পরিকল্পিতভাবে গড়ে তুলতে হবে। গ্রামগঞ্জে কোথাও কেউ যদি বাসাবাড়ি, দোকানপাট, মসজিদ-মাদ্রাসা, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, হাসপাতাল, ক্লাব কিংবা অফিস-আদালতসহ যেকোনও অবকাঠামো নির্মাণ করতে চায় তাহলে অবশ্যই একটি যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে অনুমতি নিতে হবে। এক্ষেত্রে ইউনিয়ন পরিষদকে দায়িত্ব দেওয়া যেতে পারে।

তাজুল ইসলাম বলেন, ইউনিয়ন পরিষদের সক্ষমতা নিয়ে প্রশ্ন আসতেই পারে। কিন্তু একটি নির্দিষ্ট কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে নিয়ন্ত্রণ করতে না পারলে গ্রামে অপরিকল্পিতভাবে অবকাঠামো নির্মাণ ঠেকানো যাবে না। ইউনিয়ন পরিষদকে এ বিষয়ে ক্ষমতায়ন করার পর তারা যাতে ক্ষমতার অপব্যবহার করতে না পারে সেজন্য উপজেলা পরিষদকে সংযুক্ত করা হবে। কেউ যদি ক্ষমতার অপব্যবহার করে তার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। কোনও অবস্থায় অনুমতি ব্যতীত কৃষি জমিতে বাড়িঘর বা অন্য কোনও প্রতিষ্ঠান/স্থাপনা নির্মাণ করতে দেওয়া যাবে না।

রাজধানীতে জোনভিত্তিক বিদ্যুৎ, পানি এবং গ্যাসসহ অন্যান্য ইউটিলিটি সার্ভিসের বিল নির্ধারণ করার ওপর পুনরায় গুরুত্বারোপ করে মন্ত্রী বলেন, গুলশান, বনানী-বারিধারা এলাকার মতো যাত্রাবাড়ী বা স্বল্প আয়ের মানুষ বসবাসরত এলাকার ইউটিলিটি বিল সমান হতে পারে না এবং এটা নির্ধারণ করা যুক্তিসঙ্গতও হবে না।

মন্ত্রী ঢাকা শহরের ৩৯টি খালসহ সকল বড় বড় শহরের আওতাধীন খালগুলো অবৈধ দখলমুক্ত করে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন এবং ওয়াটার ট্রান্সপোর্ট চালু করে সৌন্দর্যবর্ধন ও নাগরিকবান্ধব করতে সকল সিটি করপোরেশন মেয়রদের পরামর্শ দেন ।

বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব প্ল্যানার্সের সাধারণ সম্পাদক ড. আদিল মোহাম্মদ খানের সঞ্চালনায় সংলাপে ঢাকা উত্তর সিটি, খুলনা, রাজশাহী, চট্টগ্রাম, নারায়ণগঞ্জ, গাজীপুর এবং ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের মেয়ররা অংশগ্রহণ করেন।

সর্বশেষ খবর

এমপি কমলের নির্দেশে গর্জনিয়ায় দীর্ঘদিনের অবহেলিত সড়কের মেরামত কাজ শুরু

  নিজস্ব প্রতিবেদক : প্রাচীন চীনে প্রায়ই হুয়াংহো নদী ছাপিয়ে উঠে সবকিছু বন্যায় ভাসিয়ে দিত বলে এই নদীর নাম ছিল "চিনের দুঃখ"। আর রামুর গর্জনিয়াবাসীর দু:খ...

দুর্গোৎসবে প্রস্তুত জেলার ৩০৫ টি পূজা মণ্ডপ

রাহুল মহাজন : সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গোৎসবের পুণ্যলগ্ন শুভ মহালয়া হয়ে গেছে গত রোববার। এদিন থেকেই শুরু দেবীপক্ষের। আর মাত্র এক...

কক্সবাজারে ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে ক্ষতবিক্ষত পর্যটক

আয়াছুল আলম সিফাত : কক্সবাজারে ছিনতাইকারীদের ছুরিকাঘাতে আহত হয়েছে দুই পর্যটক। এরমধ্যে একজনের অবস্থা গুরুতর। শুক্রবার ভোরে সমুদ্র সৈকতের সীগাল পয়েন্টে এই ঘটনা ঘটে। আহত পর্যটকরা হলেন,...

মহেশখালীতে কলেজ ছাত্র আরাফাত হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় আটক -২

কাব্য সৌরভ, মহেশখালী: মহেশখালীতে কলেজ ছাত্র আরাফাত হত্যা মামলার এজাহারনামীয় দুই আসামিকে কক্সবাজার রামু থেকে আটক করেছে পুলিশ। শুক্রবার (৩০ সেপ্টেম্বর) রামুর গর্জনীয়ার কচ্ছপিয়া এলাকা থেকে...