রবিবার, সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২২

বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ সবার আগে

অস্ত্রে কাঁধে ভাইরাল হওয়া সেই টুলু কে রক্ষায় প্রভাবশালী চক্রের মিশন

নিজস্ব প্রতিবেদক :

কক্সবাজারের ঈদগাঁও ইউনিয়নের গহীন জঙ্গলে অস্ত্র কাঁধে মহড়া দেওয়া সেই টুলু এখনো ধরাছোঁয়ার বাইরে। তাকে বাঁচাতে মরিয়া হয়ে উঠেছে স্থানীয় একটি প্রভাবশালী মহল। চক্রটি মোটা অংকের টাকা নিয়ে বিভিন্ন দপ্তরে তদবির চালিয়ে যাচ্ছে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, বন বিভাগসহ আরো কয়েকটি সংস্থাকে তারা ম্যানেজের চেষ্টা চালাচ্ছে বলে খবর পাওয়া গেছে।পুলিশ বলছে তোফায়েল আহমেদ টুলুকে ধরতে ইতিমধ্যে বিভিন্ন স্থানে সোর্স ও নিজস্ব লোক লাগানো হয়েছে।

জানা গেছে, ঈদগাঁও উপজেলার ঈদগাঁও ইউনিয়নের কালিরছড়া ৬নং ওয়ার্ডের মৃত ছৈয়দ আকবরের ছেলে দূর্ধর্ষ সন্ত্রাসী তোফায়েল আহমেদ টুলু বেশ কয়েক দিন আগে একটি ভারি আগ্নেয়াস্ত্র কাঁধে নিয়ে গহীন অরণ্যে মহড়া দিচ্ছে। এমন একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে ব্যাপক তোলপাড় সৃষ্টি হয়। এ সংক্রান্ত সংবাদ টিটিএনসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে সচিত্র প্রতিবেদন প্রকাশ হলে অস্ত্রটি বন বিভাগের বলে দাবি করে বসে অভিযুক্ত তোফায়েল আহমেদ টুলু। তবে সাধারণ জনগনের হাতে সরকারি অস্ত্র দেওয়ার প্রশ্নই আসে না বলে জানান মেহের ঘোনা রেঞ্জ কর্মকর্তা রিয়াজ ইসলাম। এদিকে প্রকাশ্যে অস্ত্র কাঁধে মহড়া দেওয়া তোফায়েল আহমেদ টুলু ধরাছোঁয়ার বাইরে থাকায় আতংকিত স্থানীয়রা । যে কোনো মুহুর্তে ঐ অস্ত্র দিয়ে খুনের মতো ঘটনা ঘটানোর আশঙ্কাও বিরাজ করছে এলাকায়।প্রাপ্ত তথ্যে জানা যায়, তার বিরুদ্ধে কক্সবাজার সদর থানা, রামুসহ বিভিন্ন থানা -আদালতে বন, অস্ত্র, ডাকাতি, অপহরণ, হত্যা,চাঁদাবাজির একাধিক মামলা রয়েছে,এলাকার ত্রাস হিসেবে পরিচিত। স্থানীয়রা জানায়, তুচ্ছ ঘটনা নিয়েও এই তোফায়েল আহমেদ টুলু অস্ত্র উঁচিয়ে ভয়ভীতি প্রদর্শন করে আসছে। তার অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে এলাকা ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে অনেকেই। নিজেকে বন বিভাগের হেডম্যান পরিচয় দিয়ে রিজার্ভ জমি দখল, পরে মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে বিক্রি, তার কথার বাইরে গেলে বন মামলা দিয়ে হয়রানিসহ নানারকম নির্যাতনের শিকার হচ্ছে স্থানীয়রা। তার এসবের বিরুদ্ধে কেউ প্রতিবাদ করার সাহস করে না, প্রতিবাদ করলে নেমে আসে বর্বর নির্যাতন।

অভিযোগ রয়েছে ঈদগড় -ঈদগাঁও সড়কের শীর্ষ ডাকাত তোফায়েল আহমেদ টুলু রাতারাতি বন বিভাগের হেডম্যান পরিচয় দিয়ে অপরাধ মুলক কর্মকান্ড চালিয়ে আসছে। সম্প্রতি আগ্নেয়াস্ত্র কাঁধে একটি ছবি ভাইরাল হলে মুখ খুলতে শুরু করে স্থানীয়রা। স্থানীয়রা জানায়, টুলুর নির্যাতনে এলাকাবাসী এখন দিশেহারা হয়ে পড়েছে। স্থানীয় কয়েকজন প্রভাবশালী ব্যক্তির ছত্রছায়ায় এসব অপরাধ মুলক কর্মকান্ড চালিয়ে আসলেও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী কোনো পদক্ষেপ নেয়নি।নাম প্রকাশ না করার শর্তে কয়েকজন যুবক বলেন, তোফায়েল আহমেদ টুলু পাহাড়ের স্ব ঘোষিত রাজা,গাছ চুরি, বনজ সম্পদ দখল, সড়ক ডাকাতি, অপহরণ, অস্ত্র ব্যবসা, ছড়ার অবৈধ বালু উত্তোলন,পাহাড় কাটা এখন তার নিত্যদিনের পেশা।

নির্ভর যোগ্য সূত্রে জানা গেছে, তোফায়েল আহমেদ টুলু বন বিভাগের মাছুয়া খালী বিটের অজস্র রিজার্ভ জমি দখল, বন্য প্রাণী শিকার, পাচার ও বিক্রি করে আসছে। নিজস্ব সন্ত্রাসী বাহিনী গড়ে তুলে এলাকায় প্রভাব বিস্তার করে নানান ঘটনার জন্ম দিচ্ছে। রিজার্ভ জমি দখল করে প্রজেক্ট, বালি উত্তোলন, অস্ত্র ব্যবসা, কিশোর গ্যাং লালন -পালন, বণ্যপ্রাণী শিকার, হত্যা, বিক্রি ও মাদক ব্যবসাসহ বহু অপকর্ম চালিয়ে আসছে। বন বিভাগের নাকের ডগায় রিজার্ভ জমি দখল করে এসব অপকর্ম করে আসলেও তার বিরুদ্ধে বন বিভাগ কোনো ব্যবস্থা নেয় না বলে জানায় স্থানীয়রা। অভিযোগ রয়েছে ঈদগড়ের শীর্ষ সন্ত্রাসী অস্ত্র কারিগর কালু ও মোস্তাক আহমদ বাবুলের অস্ত্র তৈরীর কারখানা থেকে আগ্নেয়াস্ত্র এনে উচ্চ মুল্যে বিক্রি করে আসছে৷ কাঁধে অস্ত্র নিয়ে তোলা ছবির বিষয়ে জানতে চাইলে তোফায়েল আহমেদ টুলু বলেন ;সেটি বন বিভাগের অস্ত্র, বন পাহারা দিতে বন বিভাগের পক্ষে দিয়েছিল। যদিওবা বনবিভাগের মেহেরঘেনা রেঞ্জ কর্মকর্তা বিষয়টি সত্য নয় বলে জানায়। স্থানীয়রা তার হাতে থাকা অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার পূর্বক দ্রুত সময়ের মধ্যে তোফায়েল আহমেদ টুলুকে আইনের আওতায় এনে এলাকার আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক, দখলবাজি,বণ্যপ্রাণী হত্যা শিকার রোধে ব্যবস্থা গ্রহনের দাবী জানিয়েছেন।

এ বিষয় ঈদগাঁও থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আবদুল হালিমের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন ;তোফায়েল আহমেদ টুলুর কাঁধে একটি আগ্নেয়াস্ত্রের ছবি দেখা গেছে। সেটি বন বিভাগের বলে দাবি করে আসছে স্থানীয় কয়েক ব্যক্তি। তারপরও পুলিশ যাচাই বাছাই করে ব্যবস্থা নিবে।

এদিকে টুলুকে রক্ষায় মাঠে নেমেছে তার অবৈধ বালু ও পাহাড় দখল সিন্ডিকেটের সদস্যরা, এমন অভিযোগ স্থানীয়দের। এই চক্র বড় অংকের টাকা নিয়ে ভাইরাল হওয়া ছবির অস্ত্র তার নয় বলে টুলুকে রক্ষার চেষ্টা চালাচ্ছে। চক্রটিতে রয়েছে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, কমিউনিটি পুলিশিং এর নেতাসহ অনেকেই।

সর্বশেষ খবর

জামিনে বের হয়ে হত্যার পরিকল্পনা

এমরান হোসাইন: চট্টগ্রামের মিরসরাই উপজেলার জোরারগঞ্জ এলাকার যুবলীগ কর্মী মোঃ শহিদুল ইসলাম আকাশকে নির্মম ও নৃশংসভাবে কুপিয়ে হত্যাকান্ডের মূল পরিকল্পনাকারী মোঃ মামুন সহ তার সহযোগীকে...

মিয়ানমার থেকে সাঁতরে এলো মহিষের পাল

নিজস্ব প্রতিবেদক: মিয়ানমার থেকে নাফ নদী সাঁতরে একটি মহিষের পাল প্রবেশ করেছে টেকনাফে। সাতঁরে আসা ১৯টি মহিষ বিজিবির হেফজতে নেয়া হয়। রোববার সকালে টেকনাফের হ্নীলার...

মেয়র হেলদি সিটিজ’র চেয়ারম্যান হলেন- মুজিবুর রহমান

রাহুল মহাজন: সারাদেশের পৌরসভার মেয়রদের সংগঠন মেয়র এলায়েন্স ফর হেলদি সিটিজ এর নতুন চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন কক্সবাজার পৌরসভার মেয়র মুজিবুর রহমান।কো- চেয়ারম্যান সভার পৌরসভার মেয়র...

টেকনাফে কোস্ট গার্ডের অভিযানে ১৩ টি স্বর্ণের বার জব্দ

টেকনাফে কোস্ট গার্ডের অভিযানে ১৩ টি স্বর্ণের বার জব্দটেকনাফে কোস্ট গার্ডের অভিযানে ২১৫৯.৪৩ গ্রাম ওজনের ১৩ টি স্বর্ণের বার জব্দ করেছে। রবিবার (২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২)...